উদ্ভাস-উন্মেষ এর অনলাইন ক্লাসের ভিডিও রেকর্ড কারীদের জন্য বিশেষ সতর্কবাণী !!!

সম্প্রতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে কিছু অসাধু লোক তাদের ব্যক্তিগত স্বার্থ হাসিলের উদ্দেশ্যে উদ্ভাস-উন্মেষ এর অনলাইন ক্লাসগুলো বে-আইনিভাবে স্ক্রিনরেকর্ড করে তাদের ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড দিচ্ছে। যা দেশের প্রচলিত আইনে একটি অপরাধমূলক কর্মকান্ড হিসেবে বিবেচিত হয়। উদ্ভাস-উন্মেষ এর অনলাইন ক্লাসগুলো স্ক্রিনরেকর্ড করে কারো নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড, বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রচার কিংবা টাকার বিনিময়ে বিক্রয় করা শাস্তিযোগ্য অপরাধ। শুধুমাত্র ‘উদ্ভাস-উন্মেষ’-ই উক্ত অনলাইন ক্লাসগুলো প্রচার করার অধিকার রাখে। কোন ব্যক্তি যদি উক্ত অপরাধমূলক কাজে জড়িত হয়, তবে উদ্ভাস-উন্মেষ শিক্ষা পরিবার নিম্নোক্ত ধারা মোতাবেক তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বাধ্য হবে।

বে-আইনিভাবে তথ্য-উপাত্ত ধারণ, স্থানান্তর, ইত্যাদির দণ্ড৩৩: (১) যদি কোনো ব্যক্তি কম্পিউটার বা ডিজিটাল সিস্টেমে বে-আইনি প্রবেশ করিয়া সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত বা সংবিধিবদ্ধ সংস্থা বা কোনো আর্থিক বা বাণিজ্যিক সংস্থার কোনো তথ্য-উপাত্তের কোনোরূপ সংযোজন বা বিয়োজন, স্থানান্তর বা স্থানান্তরের উদ্দেশ্যে সংরক্ষণ করেন বা করিতে সহায়তা করেন, তাহা হইলে উক্ত ব্যক্তির অনুরূপ কার্য হইবে একটি অপরাধ।

(২) যদি কোনো ব্যক্তি উপ-ধারা (১) এর অধীন কোনো অপরাধ সংঘটন করেন, তাহা হইলে তিনি অনধিক ৫ (পাঁচ) বৎসর কারাদণ্ডে, বা অনধিক ১০ (দশ) লক্ষ টাকা অর্থদণ্ডে, বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হইবেন।

(৩) যদি কোনো ব্যক্তি উপ-ধারা (১) এ উল্লিখিত অপরাধ দ্বিতীয় বার বা পুনঃপুন সংঘটন করেন, তাহা হইলে তিনি অনধিক ৭ (সাত) বৎসর কারাদণ্ডে, বা অনধিক ১৫ (পনেরো) লক্ষ টাকা অর্থদণ্ডে, বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হইবেন।